LearnArticle লেখক হোন লেখক লগইন শর্ত ও নিরাপত্তা ENGLISH ব্যানার বিজ্ঞাপন তৈরি করুন
              অনলাইন প্রকাশক
www.learnarticle.com
        সার্বিক সহযোগিতায়





বাংলাদেশের কিছু ঐতিহ্যবাহী এবং জনপ্রিয় পোশাক-আশাক

বাংলাদেশের মানুষের নিজস্ব কিছু বিশেষ পোশাক-আশাক আছে যা নিজেদের ঐতিহ্য এবং সংস্কৃতি বহন করে গোটা বিশ্বময়। পৃথিবীর যেখানেই বাংলাদেশের মানুষ থাকুকনা কেন তাদের পরনে কিংবা ব্যাগের ভেতর বাঙ্গালীর এই সব পোশাক থাকবেই। এই সব পোশাক বাংলাদেশের মানুষের পূর্বপুরুষদের হাজার বছরের স্মৃতি বহন করে চলছে। তবে বর্তমান পশ্চিমা সাংস্কৃতিক আগ্রাসন এবং বিশ্বময় পশ্চিমা সংস্কৃতির প্রসারের পথ ধরে আমাদের এই সকল নিজস্ব সংস্কৃতি আজ হুমকির সম্মুখীন। সুতরাং আমাদের নিজেদের সংস্কৃতি এবং সভ্যতা সম্পর্কে পর্যাপ্ত জ্ঞান অর্জন এবং সেগুলো সংরক্ষণে সময়োপযোগী পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে।

পোশাকের ক্ষেত্রে আমরা সবসময় দেখে থাকি সময়ের সাথে সাথে পোশাকের পরিবর্তন হয়। যেমন একসময় মহিলারাদের মসলিন, জামদানি, টাঙ্গাইল শাড়ির বিশ্বজুড়ে খ্যাতি ছিল। আর পুরুষরা টুপি, আচকান, চোগা ও পাগড়ি এসব পোশাক পরত।

এরপর উনিশ শতকের শেষ এবং বিশ শতকের শুরু অর্থাৎ দ্বিতীয় মহাযুদ্ধের কালে পুরুষরা পশ্চিমা রীতির শার্ট, প্যান্ট, স্যুট ও টাই পরতে শিখেছে। তখনকার সময় কোর্তা বা পাঞ্জাবি এর উপরে কটি এবং বাম কাঁধে চাদর বা শাল ছিল আনুষ্ঠানিক পোশাক।

কিন্তু দিন যতই অতিবাহিত হয়েছে মানুষ ততই অফিসের জন্য এবং জাতীয় ও সরকারি অনুষ্টানে পাশ্চাত্য পোশাক বেশি করে পরেছে। নব্বই দশক থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত সময়ে শাড়ির ক্ষেত্রে বিপ্লব সংঘটিত হয়।

বস্ত্রকল থেকে উৎপন্ন মিহি সুতি শাড়িতে দেখা যায় নতুন রং এবং চমকপ্রদ নকশারীতি। নানা রঙের এবং বিভিন্ন নকশার এসব সুতি শাড়ি ছাড়া ও বিভিন্ন অনুষ্টান এবং অফিস আদালতে মহিলারা সিল্ক শাড়ি ও পরছে। এছাড়া মেয়েরা স্বাচ্ছন্দ্যময় পোশাক হিসেবে থ্রিপিস পরছে।

বিবাহিত মেয়েদের জন্য একসময় নিষিদ্ধ সালোয়ার - কামিজ এখন বিদ্যালয়ে, মহাবিদ্যালয়ে ও বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রীরা, গৃহবধূরা বাইরের জীবনের কাজকর্ম ও চলাফেরার সুবিধার্থে এই পোশাক গ্রহণ করেছে। এছাড়া সান্ধ্য পোশাক হিসেবে এর সঙ্গে যুক্ত হয়েছে জরি, লেস,ব্রোকেড ইত্যাদি।

এছাড়া পোশাকের ম্যাচিং অনুযায়ী জামদানী, টাঙ্গাইল ও মসলিন দোপাট্টা ওড়না ও পরিধান করা হয়। তাছাড়া অতীতে শাড়ির সাথে লম্বা চুল মহিলারা খোপা করে বা বিনুনি করে রাখত। কিন্তু বর্তমানে বিউটি পার্লারের সহজলভ্যতার কারণে পোশাক এবং সাজ গোজ অনুযায়ী চুলের স্টাইল করে থাকে।

বর্তমানে বাঙ্গালির ঐতিহ্যের পোশাক শাড়ি লুঙির জায়গায় আস্তে আস্তে দখলদারিত্ব শুরু করেছে নানা জাতের প্যান্ট। আধুনিক যুগে ফ্যাশন সচেতন তরুণ প্রজন্মের পোশাকের তালিকায় প্রাধান্য পাচ্ছে টি- শার্ট, টপস, ফতুয়া, শর্ট পাঙ্গাবি,টাইটস,থ্রি-কোয়াটার প্যান্ট, জিন্স প্যান্ট ইত্যাদি।

বিভিন্ন পার্টিতে অংশ নেওয়ার পাশাপাশি বিশ্ববিদ্যালয়, পার্ক বা রেস্টুরেন্ট যেখানেই আড্ডা দিক না কেন সবখানেই ফ্যাশনসচেতনতা ও ওয়েস্টার্ন এর দিকে ঝুঁকে পড়ছে তরুণরা। বর্তমান সময়ে ওয়েস্টার্ন কালচার, রক স্টাইল, ইংলিশ মুভি দেখে টিনএজরা তাদের নিত্য দিনের জীবনযাপনে এগুলো অনুসরণ করছে।

আজকের জনপ্রিয় পোশাক জিন্স বা ডেনিম, স্কার্ট, টপস, ব্লেজার সবকিছুই আকাশ সংস্কৃতির অংশ। তবে নকশা ও কাটিংয়ে এতে অনেকটা দেশিয় আদল দেওয়া হয়েছে। এসব পোশাকের ইতিহাস আমদানিকৃত পোশাকের ইতিহাস। একসময় থাইল্যান্ড, হংকং,চায়না থেকে এসব পোশাক আমদানি করা হতো রুপালি পর্দার তারকাদের জন্য।

কিন্তু সময়ের ব্যবধানে বর্তমানে ব্রান্ডের সব ফ্যাশন হাউজ যেমন ক্যাটস আই, ইয়েলো, ইনফিনিটি ইত্যাদি এসব পোশাক তৈরি করছে। এছাড়া রাজধানীর বঙ্গবাজার, নিউমার্কেট, হকার্স মার্কেটে টিনএজদের এসব ওয়েস্টার্ন স্টাইলে তৈরি করা ফ্রক, টপস, ফতুয়া, টি-শার্ট, প্যান্ট ইত্যাদি পাওয়া যাচ্ছে।

আধুনিকতার শুরুটা তরুণদের হাত ধরে হলেও পরিবর্তনের ধারা একবার সূচিত হলে তা সবার গায়ে লাগে। তাই আমাদের উচিত দেশীয় সংস্কৃতি আমাদের তরুণ প্রজন্মের কাছে তুলে ধরা যাতে তারা বিদেশী সংস্কৃতির পিছনে ছুটতে ছুটতে তাদের জীবনটাকে অস্বাভাবিক করে না ফেলে।

এজন্য আমাদের মিডিয়া, ফ্যাশন ডিজাইনার, পোশাক কারখানা, বিজ্ঞ ব্যক্তিগণ সর্বোপরি সরকারকে এগিয়ে আসতে হবে। এতে করে তরুণ তরুণীরা বিদেশী সংস্কৃতির লোলুপ দৃষ্টির শিকার হবে না। তাছাড়া মার্জিত রুচি সম্মত পোশাক সবাইকে বাইরে নিরাপদে রাখার কার্যকর হাতিয়ার।

পরিশেষে বলতে চাই, বাংলাদেশে সাংস্কৃতিক বৈশিষ্ট্য হিসেবে শাড়ির অবস্থান অনস্বীকার্য। তাই দেশীয় সংস্কৃতি অনুসরণ করুন আর দেশীয় পোশাকে নিজেকে সাজিয়ে তুলুন।


আরো পিডিএফ ই-বুক ফ্রি ডাউনলোড অথবা প্রিন্ট করুন

বাংলাদেশের অর্থনীতিতে পারিবারিক পশু-পাখি পালনের গুরুত্ব

জেনে নিন মাটন বা গরুর মাংসের কাচ্চি বিরিয়ানি রান্নার রেসিপি

বাংলা ভাষার বৃহত্তম প্রশ্ন উত্তর কমিউনিটি সাইট (প্রশ্নউত্তর)

জামালপুর জেলার উপজেলা, দর্শনীয় স্থান এবং জামালপুরের আরও অনেক তথ্য

হতাশা কি এবং হতাশা থেকে মুক্তি পাওয়ার উপায়

যুদ্ধই জীবন যুদ্ধই সার্বজনীন হিটলারের এ উক্তির বাস্তব রূপ

বান্দরবান জেলার উপজেলা, দর্শনীয় স্থান ও জেলা সংক্রান্ত উপকারী কিছু তথ্য

বাঙ্গালীর বিনোদনের একাল সেকাল

© ২০১৬ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত LearnArticle.com